Bangladesh: Burning in the Fire of Greed

WalMart shirt in burnt factory. Image: International Labor Rights Forum via The Nation

Oh WalMart, NOW you developed a conscience? You ran to Bangladesh for the cheapest possible labor, to keep your profit margins intact in a recession. But now you want to wash your hands clean? Also, Labor activists find burnt clothes, it was a killer bargain and the WalMart factor won’t go away.

Rahnuma Ahmed: Killers at Large

Crying mother of dead worker. Photo: Andrew Biraj/Reuters

[I]n a Monday interview, Workers Rights Consortium Executive Director Scott Nova said Walmart’s “culpability is enormous. First of all they are the largest buyer from Bangladesh” and so “they make the market.” Nova said Bangladesh has become the world’s second-largest apparel supplier “because they’ve given Walmart and its competitors what they want, which is the cheapest possible labor costs.”
“So Walmart is supporting, is incentivizing, an industry strategy in Bangladesh: extreme low wages, non-existent regulation, brutal suppression of any attempt by workers to act collectively to improve wages and conditions,” Nova told The Nation. “This factory is a product of that strategy that Walmart invites, supports, and perpetuates.

Andrew Biraj/Reuters

“লঞ্চ ডুবে মরলে পাওয়া যায় তিরিশ হাজার টাকা। গারমেন্টস কারখানার আগুনে পুড়ে মরলে এক লাখ টাকা। কোরবানির হাটে পশুর দামের চেয়ে বেশি দাম যে দেশে মানুষের ওঠে না, সেই দেশটাই কোরবানির হাট।” – হাঁটুপানির জলদস্যু

Andrew Biraj/Reuters

Meanwhile in US: Wal-Mart Worker Uprising

“শ্রমিকদের কাজের নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক স্বার্থ নিশ্চিত করাও যে একটি দেশের অর্থনৈতিক বিকাশের অংশ প্রবৃদ্ধি মার্কা চিন্তা তাকে হিশাবের মধ্যে ধরে না। অতএব শ্রমিক পুড়ে মরল কি জ্যান্ত মাটির নিচে চাপা পড়ল তাতে কারো কিছুই আসে যায় না, কারণ যা আসে যায় তা হছে প্রবৃদ্ধির হার। নব্য ধনিদের চিন্তা হচ্ছে বাংলাদেশকে মধ্য আয়ের দেশ বানাতে হলে প্রবৃদ্ধির হার কতটা দরকার। ছয়? সাত? নাহ। আমাদের দরকার কমপে আট। আহ। এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ!!! ছয় থেকে আটের হিশাবের মধ্যে পড়ে থাকবে বহু কিশোরীর পুড়ে কয়লা হয়ে যাওয়া শরীর। সেই শরীরগুলো গুনবার কেউই থাকবে না।”

ফরহাদ মজহার: এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ!!!

Polash Khan/AP


  1. The garment factory in Bangladesh where a weekend fire killed at least 112 people had been making clothes for Walmart

    May 31, 2012: Bangladesh workers in solidarity with Walmart striking workers in USA

  2. Wal-Mart says it stopped working with nearly 50 Bangladeshi factories because of fire risks, but the company wasn’t sure if they were still 

    Thousands of Bangladeshis protest after factory fire that killed 112 

  3. আশুলিয়ার গার্মেন্টস আর বহদ্দারহাটের ফ্লাইওভারে রাষ্ট্রীয় হত্যাযজ্ঞ

    আশুলিয়ার যে আগুন এখনো নিভে নাই ।। আলী রীয়াজ

    ABC: $1200 per life, Clothing Company Pays Peanuts to Families of Factory Fire Dead

    কিন্তু বাস্তবতা হলো দেশের প্রায় সব গার্মেন্ট ফ্যাক্টরীতেই নিরাপত্তার নামে এমন প্রক্রিয়া চালু আছে। নিরাপত্তা মানে শ্রমিকের নিরাপত্তা নয়। এই নিরাপত্তা পোষাকের বা পণ্যের নিরাপত্তা। এই নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষের নিরাপত্তা। শ্রমিকরা কি মানুষ নাকি যে তাদের জন্য ফটক খুলে দিতে হবে খানিক আগুণ জ্বললেই!

5 thoughts on “Bangladesh: Burning in the Fire of Greed

  1. Pingback: NISCHINTAPUR DEATHS: Killers at large | ShahidulNews

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s